1. adnan210.net@gmail.com : Kanon Badsha : Kanon Badsha
  2. themesbazar@gmail.com : theam bazar : theam bazar
  3. khanmdmahadi29@gmail.com : Khan Md mahadi : Khan Md mahadi
  4. somoyexpressnews@gmail.com : নাঈম সজল : নাঈম সজল
  5. Kanonbd1@gmail.com : নিউজ ডেষ্ক : সময় এক্সপ্রেস নিউজ ডেস্ক
  6. raytahost@gmail.com : theam 2022 : theam 2022
সোমবার, ২৯ মে ২০২৩, ০৪:৪০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাকেরগঞ্জ বাসীর নির্ভরতার স্থান ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন আহমেদ ঝন্টু বরিশাল নগরীর শীতলা খোলা এলাকায় (তুষারের)সন্ত্রাসী কর্মকান্ড থামছে না ?      প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে সেনবাগে সেচ্ছাসেবক লীগের মটর শোডাউন গৃহিণী থেকে নগরমাতা আওয়ামী লীগ রুখতে পারলেন না জাহাঙ্গীরকে- গাজীপুরের ‘নগরমাতা’ জায়েদা খাতুন মায়ের বিজয়ের পর যা বললেন জাহাঙ্গীর আলম গাজিপুর সিটি নির্বাচন-৪৫০ কেন্দ্রের ফলাফলে জায়েদা খাতুন ২০ হাজার ভোটে এগিয়ে গাজীপুর সিটি নির্বাচন-৪২৬ কেন্দ্রের ফলাফলে এগিয়ে টেবিল ঘড়ি গাজিপুরে নৌকার ভরাডূবির শঙ্কা তরুণ প্রজন্মের ফটোগ্রাফার নয়ন আহম্মেদ এর জন্মদিন আজ

অনিয়ম আর দুর্নীতির হাতুর ঘর ভরপাশা ইউনিয়ন ভূমি অফিস

ঘুষ ছাড়া কোনো কাজ করেন না বাকেরগঞ্জের ভরপাশা ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন। অনিয়ম, ঘুষ, দুর্নীতি, হয়রানি, সহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে ওই তহশিলদারের বিরুদ্ধে। ভূমি অফিসের চৌকাঠ পেরুলেই তহশিলদারের নিজের করা আইন মানতে হয় ভূমিসেবা নিতে সাধারণ মানুষকে। কেউ এর প্রতিবাদ করলেই তাকে ভূমিসেবা নিতে ঘুরতে হয় মাসকে মাস।

উপজেলা প্রশাসন অফিস সূত্রে জানা যায়, গত ২০২০ সালে মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা হিসেবে যোগদান করেন। এরপর থেকেই নানা অনিয়ম দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়ার অভিযোগ উঠে।

অভিযোগ রয়েছে ভরপাশা ইউনিয়নের একাধিক ব্যাক্তির, কৃষ্ণকাঠি গ্রামের কৃষক মালেক অালীর, জমির খাজনা বাবদ তার কাছ থেকে নগদ ২ হাজার টাকা নিয়ে ৮৫০ টাকার একটি রশিদ হাতে ধরিয়ে দেন তহশিলদার জাহাঙ্গীর হোসেন।

অভিযোগ রয়েছে, ভরপাশা ইউনিয়নের হাতাকাঠি গ্রামের সেনা সদস্য মোঃ হেলাল উদ্দিনের ১৫০ ধারায় দায়ের করা মামলার তদন্তের জন্য সরেজমিন ঘুরে এসে ৩ হাজার টাকাও নিয়েছে তহশিলদার জাহাঙ্গীর হোসেন। ঘুষ নিলেও প্রায় এক বছর পার হয়েছে অথচ তদন্ত রিপোর্ট এখন পর্যন্ত প্রদান করেনি এই কর্মকর্তা।

হেলাল উদ্দিন জানান, একের পর এক তাগিদ দিচ্ছে জাহাঙ্গীর হোসেন। তার পিছনে ঘুরে বছর শেষ।

অভিযোগ রয়েছে ভরপাশা পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা অালাউদ্দিন জোমাদ্দারের ১৪৪-১৪৫ ধারা মামলার তদন্ত রিপোর্ট প্রদান বাবদ ২ হাজার টাকা ঘুষ গ্রহন করেছে জাহাঙ্গীর হোসেন। ঘুষ নিয়েও জাহাঙ্গীর হোসেন ৬ মাস পার করলেও রিপোর্ট প্রদান করছেন না এখনো।

এই বিষয়ে জাহাঙ্গীর হোসেন টাকা লেনদেন বিষয়টি অস্বীকার করেন। তবে কাজের বিষয়ে তিনি জানান, অফিসে তিনি একা কাজের অনেক চাপ তাই সময় মত সব কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না।

ভুক্তভোগীদের দাবি, জাহাঙ্গীর হোসেনের নানা অনিয়ম ও দুর্নীতিতে অতিষ্ঠ ভরপাশা ইউনিয়ন বাসী। ভুক্তভোগীরা এই ভোগান্তি থেকে বাঁচতে উর্দ্ধতন কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2022 somoyexpress.news
Customized By BlogTheme