1. adnan210.net@gmail.com : Kanon Badsha : Kanon Badsha
  2. themesbazar@gmail.com : theam bazar : theam bazar
  3. khanmdmahadi29@gmail.com : Khan Md mahadi : Khan Md mahadi
  4. somoyexpressnews@gmail.com : নাঈম সজল : নাঈম সজল
  5. Kanonbd1@gmail.com : নিউজ ডেষ্ক : সময় এক্সপ্রেস নিউজ ডেস্ক
  6. raytahost@gmail.com : theam 2022 : theam 2022
বৃহস্পতিবার, ০১ জুন ২০২৩, ০১:২৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনামঃ
বরিশালে নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে মাঠে নেমেছে বাকেরগঞ্জের পৌর মেয়র লোকমান ঢাকা-১৮:  স্মার্ট নগরায়ন ও শিল্পায়ন নিয়ে দয়াল কুমার বড়ুয়া’র পরিকল্পনা শাহীন সুমনের কাছে এফডিসির পাওনা ৩০ লাখ টাকা বর্ণাঢ্য আয়োজনে চিত্রনায়িকা মিষ্টি জান্নাত অভিনীত ফুলজান ছবির ট্রেলার উন্মোচন! বাকেরগঞ্জে ছাত্রদল কর্মী এখন আওয়ামী লীগ নেতা! আকাশ সেনের গানে তৃষ্ণা-হান্নান শাহ আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাকেরগঞ্জ বাসীর নির্ভরতার স্থান ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন আহমেদ ঝন্টু বরিশাল নগরীর শীতলা খোলা এলাকায় (তুষারের)সন্ত্রাসী কর্মকান্ড থামছে না ?      প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে সেনবাগে সেচ্ছাসেবক লীগের মটর শোডাউন গৃহিণী থেকে নগরমাতা

কিশোরগঞ্জে এশিয়ান টিভির সাংবাদিকের তথ্যে ডিসি ও এসপির নির্দেশে অবশেষে পরীক্ষা দিতে পারলো এসএসসি পরীক্ষার্থী

বিশেষ প্রতিনিধি:- চলমান এসএসসি পরীক্ষা শুরু হওয়ার মাত্র দুদিন আগে জানতে পারলো এক পরীক্ষার্থী স্কুল থেকে তার ফরম ফিলাপ না হওয়ায় এডমিট কার্ড ইস্যু করা হয়নি।

চরম হতাশায় পরে গেলো শিক্ষার্থী ও তার পরিবার। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে প্রধান শিক্ষককে দায়ী করা সহ ফরম ফিলাম না হওয়ায় পরীক্ষাতে অংশ গ্রহণ করতে না পারার বিষয়টি উল্লেখ করেন সে শিক্ষার্থী।

আর সেদিন রাতেই এশিয়ান টিভির বাজিতপুর উপজেলার প্রতিনিধি মো. আল আমিনের নজরে পরে পোস্টটি। তাৎক্ষণিক সে জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখকে হোয়াটসঅ্যাপ ও মুঠোফোনে কল করে জানায় বিষয়টি।

পুলিশ সুপার বিষয়টি জেলা প্রশাসক সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে অবহিত করলে স্কুল কর্তৃপক্ষকে জেলা প্রশাসক পরীক্ষা দেওয়ার সকল ব্যবস্থা সম্পন্ন করার নির্দেশ দেন।

অবশেষে শনিবারের দিকে মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড থেকে এডমিট ও রেজিঃ কার্ড হাতে পায় এ পরীক্ষার্থী।

রবিবার প্রথম পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতে পেরে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, এশিয়ান টিভির সাংবাদিক সহ সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানায় এ পরীক্ষার্থী।

জানা যায়, করোনা চলাকালীন পরীক্ষার্থী তাশফিকের বাবার ব্যাবসায় ক্ষতি ও পরিবার ঋণগ্রস্থ হয়ে পরায় তারা নানা বাড়ি জামালপুরে চলে যায়। মাঝে মধ্যে সে কিশোরগঞ্জ জেলা পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজে পরীক্ষা ও ক্লাস করতে আসতো। এরিমধ্যে স্কুলের বেতন অনেক বকেয়া পরে যায়। গত ডিসেম্বর মাসে টেস্ট পরীক্ষা শুরুর আগে বিশ হাজার টাকা পরিশোধ করে বাকী বকেয়া যথা সময়ে দিতে না পারায়
স্কুল কর্তৃপক্ষ তার ফরম ফিলাপ করেনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2022 somoyexpress.news
Customized By BlogTheme