1. [email protected] : admins :
  2. [email protected] : Kanon Badsha : Kanon Badsha
  3. [email protected] : Nayeem Sajal : Nayeem Sajal
  4. [email protected] : News Editir : News Editir
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৫:৫৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম: তাবরিজ যাচ্ছেন শীর্ষ কর্তারা এটিএন বাংলার চায়ের চুমুকে সংগঠক ও বিনোদন সাংবাদিক আবুল হোসেন মজুমদার হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে ইরানের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুর শঙ্কা প্রতিপক্ষের হামলার শিকার হয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন রফিকুল ইসলাম রফিক নামে এক ব্যক্তি সদস্যপদ ফেরত পেয়ে জায়েদ খান বললেন ‘সত্যের জয় হয়েছে’ বাচসাস’র সদস্যপদ নবায়নের আহ্বান বাংলাদেশ ব্যাংকে সাংবাদিকরা কেন ঢুকবে, প্রশ্ন ওবায়দুল কাদেরের প্রকাশ্য এলো নিরব-রিফাতের ‘অবুঝ মনের প্রেম’ ২৪ মে মুক্তি পাচ্ছে নিরব-স্পর্শিয়ার ‘সুস্বাগতম’ সমাজকর্মী থেকে রাজনীতির মাঠে সাহিদা, করতে চান মেহনতী মানুষের সেবা

মুন্সীগঞ্জে নির্বাচনি ক্যাম্পে হামলা চালিয়ে নৌকা সমর্থককে গুলি করে হত্যা

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২৪

 মুন্সীগঞ্জ- ৩ আসনে নৌকার প্রার্থীর নির্বাচনি ক্যাম্পে হামলা চালিয়ে একজনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে; পিটিয়ে আহত করা হয়েছে আরেকজনকে।

নিহত ডালিম সরকার (৩৫) এ আসনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মৃণাল কান্তি দাসের সমর্থক। আহত সোহেল মিয়াকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বুধবার (৩ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ১২টার দিকে সদর উপজেলার মুন্সীকান্দি গ্রামে নৌকার নির্বাচনি ক্যাম্পে ওই হামলার জন্য কাঁচি প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লবের অনুসারীদের দায়ী করছেন মৃণালের কর্মী-সমর্থকরা।

ভোটের তিন দিন আগে হামলা-হত্যার এ ঘটনায় পুরো মোল্লাকান্দি ইউনিয়নে আতঙ্ক বিরাজ করছে। পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আসলাম খান বৃহস্পতিবার সকালে ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের বলেছেন, জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে। অপরাধীরা কেউ ছাড় পাবে না।

আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য। দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনেও তাকেই প্রার্থী করেছে ক্ষমতাসীন দল।

আর মুন্সিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মহিউদ্দিনের বড় ছেলে মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়রের পদ ছেড়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন।

স্থানীয়রা বলছেন, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিপ্লবের একদল কর্মী-সমর্থক মোটরসাইকেল নিয়ে সদর উপজেলার বজ্রযোগিনী বটতলায় যায়। তাদের একজন পিস্তল বের করে নৌকার ক্যাম্প লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে।

তাতে কেউ আহত না হলেও এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তখন এলাকায় ডাকাত পড়ার ঘোষণা দিয়ে মাইকিং করা হলে স্থানীয় বাসিন্দা ও নৌকার সমর্থকরা মিলে হামলাকারীদের ওপর চড়াও হয়। তাতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থক অয়ন দেওয়ান আহত হন। পরে তাকে মুন্সীগঞ্জ জেনারলের হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ নিয়ে বুধবার ওই এলাকায় উত্তেজনা চলে। রাত সাড়ে ১২ টার দিকে মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের মুন্সীকান্দি গ্রামে নৌকার ক্যাম্পে আবার হামলা হয়।

আহত সোহেল মিয়া হাসপাতালে সাংবাদিকদের বলেন, কাঁচি প্রতীকের সমর্থক ১০-১২ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী এসে আমাদের ক্যাম্পে হামলা চালায়। এলোপাতাড়ি গুলি চালায় তারা। ডালিমের গায়ে গুলি লাগার পর আমরা বাঁচাতে গিয়েছিলাম। তখন আমাকে বেধড়ক পেটায়। তাই তাকে হাসপাতালে নিতেও বিলম্ব হয়।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আসলাম খান জানান, গুলিবিদ্ধ ডালিম সরকারকে প্রথমে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলেও পরে সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অভিযোগের বিষয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিপ্লব বা তার কোনো প্রতিনিধির বক্তব্য জানতে পারেনি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
© All rights reserved © 2023 Somoyexpress.News
Theme Customized By BreakingNews